আফগানিস্তানকে বিশ্বব্যাংকের সহায়তা স্থগিত

আফগানিস্তানকে বিশ্বব্যাংকের সহায়তা স্থগিত

আফগানিস্তানকে সহায়তা দেওয়া স্থগিত করেছে বিশ্বব্যাংক। তালেবানের হাতে দেশটির নিয়ন্ত্রণ যাওয়ার প্রেক্ষিতে বিশ্বব্যাংকের পক্ষ থেকে এমন ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বব্যাংকের এক মুখপাত্র বলেন ‘আফগানিস্তানে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। দেশটির উন্নয়নে, বিশেষ করে নারীদের ওপর এই পরিস্থিতির প্রভাবের বিষয়ে।’

দুই দশক পর মার্কিন ও ন্যাটো সেনারা আফগানিস্তান ছেড়ে গেলে কাবুলের পতনের মধ্য দিয়ে দ্রুতই আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। ইতিমধ্যে তারা সরকার গঠনের বিষয়ে কার্যক্রম শুরু করেছে। সরকার গঠন না করলেও নতুন দুই মন্ত্রী ও গোয়েন্দাপ্রধানের নাম ঘোষণা করেছে তালেবান। মন্ত্রী দুজন অর্থ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। আফগানিস্তানের বার্তা সংস্থা পাজহোকের বরাত দিয়ে রয়টার্স মঙ্গলবার এ তথ্য জানায়। খবরে বলা হয়, অর্থমন্ত্রী করা হয়েছে গুল আগাকে, ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সদর ইব্রাহিম ও নাজিবুল্লাহ হবেন গোয়েন্দাপ্রধান। এ ছাড়া কাবুলের গভর্নর করা হয়েছে মোল্লা শিরিনকে। আর রাজধানীর মেয়র হলেন হামদুল্লাহ নোমানি। এর মধ্যে আফগানিস্তানের দ্য আফগানিস্তান ব্যাংকের (ডিএবি) নতুন গভর্নর হিসেবে হাজি মোহাম্মদ ইদ্রিসকে নিয়োগ দিয়েছে তালেবান।

আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ তালেবানের হাতে আসার পর সেখানকার নারীদের স্বাধীনতা, ক্ষমতায়ন, শিক্ষা, খেলাধুলা, সংস্কৃতি ইত্যাদি বিষয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে বিশ্বমহল।

বিশ্বব্যাংকের ওই মুখপাত্র আরও বলেন, বিশ্বব্যাংক আফগানিস্তানে কষ্টার্জিত উন্নয়নমূলক কাজের সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ত রাখা ও এসব সংরক্ষণের উপায় খুঁজছে।
আফগানিস্তানে বর্তমানে দুই ডজনের মতো উন্নয়নমূলক প্রকল্প রয়েছে বিশ্বব্যাংকের। বিশ্বব্যাংকের ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্যমতে, ২০০২ সাল থেকে এ পর্যন্ত দেশটিকে ৫ দশমিক ৩ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দিয়েছে তারা।

Source: